মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

এক নজরে

বিএডিসি’র বীজ বিক্রয় সংক্রান্ত সেবা প্রদান ও গ্রহণের নিয়মাবলী সংক্রান্ত বিবরণীঃ -

বীজ ডিলার নিয়োগের শর্তাবলী:

 

১। বীজ ডিলার হতে ইচ্ছুক ব্যক্তিগণ ২০০/- টাকার বিনিময়ে/উপজেলা/জেলা বীজ বিক্রয় কেন্দ্র হতে আবেদনপত্র সংগ্রহ করতে পারবেন এবং ক্যাশ রিসিপ্টসহ নির্ধারিত ফরমে আবেদন করবেন। আবেদনপত্র উপজেলা অফিসের মাধ্যমে উপ-পরিচালক (বীজ বিপণন) বরাবরে দাখিল করতে হবে।২। (ক) প্রাথমিকভাবে প্রতি অর্থ বছরের জন্য (জুলাই-জুন) ১,০০০/- (এক হাজার) টাকা লাইসেন্স ফি’র বিনিময়ে ডিলার নিয়োগ করা হবে এবং প্রতি বৎসর জুলাই/আগষ্ট মাসে ৩০০/- (তিনশত) টাকার বিনিময়ে বীজ ডিলার লাইসেন্স নবায়ন করা হবে।

খ) বীজ ডিলারগণকে নিয়ন্ত্রিত ফসলের বীজ (ধান, গম, আলু, পাট ও আখ) ছাড়াও ডাল, তৈল, সব্জী এবং ভূট্টা জাতীয় বীজসহ প্রতি বৎসর সর্বমোট ১,০০,০০০/- (এক লক্ষ) টাকার বীজ উত্তোলন করতে হবে

৩। বিক্রয় কেন্দ্রে ডিলার তার নিয়োগপত্র/লাইসেন্স প্রদর্শন করে রাখবেন।

৪। বিএডিসি কর্তৃক বিভিন্ন বীজের জন্য নির্ধারিত কমিশন অনুযায়ী ডিলার কমিশন পাবেন।
৫। ডিলার ব্যাংক ড্রাফট/পে-অর্ডারের মাধ্যমে বীজের মূল্য পরিশোধ করে বিএডিসি’র গুদাম হতে বীজ ডেলিভারী নিতে পারবেন। যে ব্যাংকে আঞ্চলিক গুদামের ‘‘বীজ প্রাপ্তি হিসাব’’ খোলা রয়েছে সেই ব্যাংকের ব্যাংক ড্রাফট/পে-অর্ডারের মাধ্যমে বীজের মূল্য পরিশোধ করে বিএডিসি’র গুদাম হতে বীজ সরবরাহ নিতে হবে। উপ-পরিচালক (বীজ বিপণন) এর অনুমতিক্রমে অন্য স্থানীয় তফসীলি ব্যাংকের পে-অর্ডার / ব্যাংক ড্রাফট গ্রহনযোগ্য হবে। পে-অর্ডার/ব্যাংক ড্রাফট প্রাপ্তির ৩ (তিন) দিনের মধ্যে মজুদ স্বাপেক্ষে বীজ সরবরাহ করা হবে।

৬। ডিলারের দোকানে সাইনবোর্ড থাকতে হবে এবং ক্যাশমেমো ইস্যু করে বীজ বিক্রয় করতে হবে।

৭। বীজ ডিলারগণ বীজ বিক্রয় মৌসুমে তাদের দোকানে লালসালু, ব্যানার টাঙ্গিয়ে বীজ বিক্রয় করবেন। ব্যানারে বীজের প্রাপ্যতা, বিক্রয়মূল্য ইত্যাদি প্রদর্শিত থাকবে।

৮। বীজ ডিলারের বিক্রয় কেন্দ্রে বীজ সংরক্ষণ উপযোগী একটি ভাল গুদাম থাকতে হবে ডিলার তার নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় বিএডিসি’র আঞ্চলিক বীজ বিক্রয় কেন্দ্র হতে তার নিজস্ব বিক্রয় কেন্দ্রে বীজ নিয়ে যাবেন।

৯। ডিলার কর্তৃক বীজ ডেলিভারী নেয়ার সময় বস্তা ও বীজের গুনগতমান পরিক্ষা করে দেখবেন এবং বিক্রয় কেন্দ্র হতে বীজ সরবরাহ নেয়ার সময় কোন ক্রুটি পরিলক্ষিত হলে ডিলারকে সঙ্গে সঙ্গে সে বীজ পরিবর্তন করে দেয়া হবে।
১০। কোন অবস্থাতেই বিক্রিত বীজ ফেরৎ নেয়া হবে না।
১১। (ক) ডিলার তার বিক্রয় কেন্দ্রের বীজ যথাযথভাবে মজুদ ও পরিচর্যা করবেন যাতে করে বীজের গুনগতমান অক্ষুন্ন থাকে এবং বীজের মান সংরক্ষণের জন্য তিনি দায়ী থাকবেন। পূর্ববর্তী মৌসুমের অবিক্রিত নিম্নমানের বীজ বিক্রয় করা যাবে না এবং মৌসুমের পরেও কোন বীজ বিক্রয়যোগ্য হবে না। 

       (খ) বীজ বিক্রয় কেন্দ্র হতে বীজ সরবরাহ নেয়ার পর বীজের গুনগতমান অক্ষুন্ন রাখার দায়িত্ব ডিলারের উপর থাকবে। দোকানে বীজ মজুদকালীন সময়ে অবহেলার জন্য বীজের গুনগতমানের কোনরুপ ক্ষতি হলে সেজন্য বিএডিসি কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না।

১২। বিএডিসি কর্তৃক সরবরাহকৃত অরিজিনাল প্যাকেট/বস্তার ডিলার বীজ বিক্রয় করবেন এবং কোন অবস্থায় বীজের প্যাকিং, মার্কিং নষ্ট বা পরিবর্তন অথবা পূর্বে ব্যবহৃত প্যাকেট/বস্তায় বীজ বিক্রয় করতে পারবেন না।

১৩। ডিলার দ্রুততার সঙ্গে বিএডিসি হতে সরবরাহকৃত বীজ বিতরনের ব্যবস্থা করবেন।

১৪। বিএডিসি, বীজ অনুমোদন সংস্থার কর্মকর্তাগণ যে কোন সময় ডিলারের গুদাম এবং বিক্রয় কেন্দ্রে বিএডিসি কর্তৃক সরবরাহকৃত বীজ পরিদর্শন করতে পারবেন।

১৫। ডিলার বিএডিসি’র বীজ কর্মকর্তাকে গুদামজাত বীজ এবং ডিলার নিয়োগপত্র/লাইসেন্স দেখাতে বাধ্য থাকবেন।

১৬। বিএডিসি, সরবরাহ কেন্দ্র হতে নির্ধারিত গুনগত মান সম্পন্ন বীজ ডিলারের নিকট সরবরাহের জন্য দায়ী থাকবেন।

১৭। বিএডিসি হতে সরবরাহকৃত বীজের গুনগতমান সম্পর্কে চাষীদের জানানোর জন্য ডিলার প্রয়োজনীয় প্রচারনার ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।

১৮। বিএডিসি’র বীজ সম্পর্কে বিভিন্ন সময়ে পর্যাপ্ত প্রচারনার ব্যবস্থা গ্রহন করবেন। বিএডিসি কর্তৃক সরবরাহকৃত বীজ সংক্রান্ত পোস্টার, পুস্তিকা ইত্যাদি বিতরণ এবং প্রদর্শণী প্লট স্থাপন তৈরি/আয়োজন করার জন্য ডিলার সকল প্রকার সহায়তা করার জন্য দায়ী থাকবেন।

১৯। ডিলার বীজের কালোবাজারী ও ভেজাল মিশ্রণ সংক্রান্ত কোন রকম কাজে সম্পৃক্ত থাকতে পারবে না। কোন ডিলার এতদসংক্রান্ত কাজে জড়িত থাকলে তার লাইসেন্স বাতিলসহ প্রচলিত আইন ও বীজ নীতি (সীড অ্যাক্ট) অনুযায় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

২০। ডিলার তার এলাকায় বীজ বিক্রির জন্য বীজের অগ্রিম চাহিদা এক বৎসর পূর্বে উপ-পরিচালক (বীজ বিপণন) কে অবহিত করবেন। অন্যথায় মৌসুমে পরিমানমত বীজ সরবরাহ করতে না পারলে বিএডিসি কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না। ডিলার নিয়োগের জন্য বর্ণিত শর্তাবলী ডিলার লঙ্ঘন করলে লাইসেন্স প্রদানকারী কর্মকর্তা কর্তৃক ডিলারের নিয়োগপত্র বাতিল করার ক্ষমতা থাকবে। এ সম্পর্কে বিএডিসি একক সিদ্ধান্ত গ্রহনের অধিকার থাকবে। ডিলারের নিয়োগপত্র বাতিল করার ফলে ডিলার যদি কোন রকম আর্থিক ক্ষয়-ক্ষতির সম্মুখীন হয় তার জন্য বিএডিসি দায়ী থাকবে না।

২১। বীজ ডিলারের দোকানে অন্য ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের খারাপ মানের বীজ এবং সরকারের অনুমোদন বিহীন কোন সংস্থা/প্রতিষ্ঠানের বীজ মজুদ/বিক্রয় করা যাবে না। অনুমোদিত অন্য কোন সংস্থা/প্রতিষ্ঠান কর্তৃক প্যাকিংকৃত বীজ সম্পর্কে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠানের প্যাকিং অথোরিটি, ব্যবসার বৈধতা সম্পর্কিত কাগজপত্র প্রত্যয়নপত্র ইত্যাদি সম্পর্কে পরিদর্শনকারী কর্মকর্তাকে নিশ্চিত করার জন্য ডিলারগণ বাধ্য থাকবেন।

২২। ডিলার কর্তৃক পরিচালিত কর্মকান্ডে বিএডিসি’র বীজের বাজার সৃষ্টি এবং এর বিপণন ও সংরক্ষণ এবং বিএডিসি’র সুনাম ক্ষুন্ন হওয়ায় কোনরূপ আশংকা দেখা দিলে এবং উপরে বর্ণিত যে কোন শর্তাবলী লঙ্ঘন করলে ডিলারের লাইসেন্স বাতিল করা হবে।

২৩। বিএডিসি কর্তৃক বীজের বিক্রয় মূল্য হ্রাস করা হলে মূল্য হ্রাসের পূর্ববর্তী তারিখে যে সব বীজ ডিলার বীজ ক্রয় করেছেন তাদেরকে কোন প্রকার আর্থিক ক্ষয় ক্ষতিজনিত অর্থ ফেরৎ প্রদানে বিএডিসি বাধ্য থাকবেন না।

ছবি


সংযুক্তি